চীনের করবিভাগ ভিন্ন মতাবলম্বী চিত্রকর আই ওয়েইয়ার কাছ থেকে কর ও জরিমানা বাবদ ১৮লক্ষ ৫০হাজার ডলার দাবী করেছে. তাঁর বিরুদ্ধে কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে. দুমাস কারারুদ্ধ থাকার পরে গত বুধবার তাকে জামিনে মুক্তি দেওয়া হয়. তবে এই মামলার তদন্ত এখনো চলছে. কৌঁসুলি লিউ সিয়াওয়ান জানিয়েছেন, যে এ সপ্তাহে চিত্রকর করবিভাগ থেকে চিঠি পেয়েছেন, যেখানে তাকে বকেয়া কর বাবদ ৮লক্ষ ও জরিমানা বাবদ সাড়ে ১০লক্ষ ডলার দেবার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে. কৌঁসুলির বক্তব্য অনুযায়ী আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে আই ওয়েইয়া উক্ত চিঠির উত্তর দিতে বাধ্য, কিণ্তু দাবী করা অর্থ বেশ মোটা অংকের এবং এরকম অর্থের দাবী একমাত্র আদালত করতে পারে. আদালতের বিচার বিভাগীয় বৈঠক ৭ই জুলাইয়ের মধ্যে বসতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে. পশ্চিমী দুনিয়ায় এই মত পোষণ করা হচ্ছে, যে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির তীক্ষ্ণ সমালোচনা করার কারনেই চিত্রকরকে জেলে যেতে হয়েছে. চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রক ঘোষণা করেছে, যে বেইজিং অলিম্পিক স্টেডিয়ামের রূপকার এই শিল্পী অর্থনৈতিক অপরাধে দোষী.