তেল নিকট ভবিষ্যতে রাশিয়ার অর্থনীতির অগ্রগতির জন্য চালিকাশক্তি আর থাকবে না. অন্যান্য শাখার মাধ্যমে রাশিয়ার মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদন বৃদ্ধি সুনিশ্চিত করার জন্য রাশিয়ার অর্থনীতির বিন্যাস পরিবর্তন করা প্রয়োজন, তাকে আরও বৈচিত্র্যময় করে তোলা দরকার. এ সম্বন্ধে “নিউ ইয়র্ক টাইমস” পত্রিকাকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে বলেছেন রাশিয়ার অর্থমন্ত্রী আলেক্সেই কুদ্রিন. তাঁর কথায়, বর্তমানে দেশের মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদনে তৈল শাখার অবদান ১৭ শতাংশ এবং পরবর্তী ১০ বছরে তা বাড়বে না. তার অর্থ হল এই যে, রাশিয়ার মোট আভ্যন্তরীন উত্পাদনের বার্ষিক বৃদ্ধি ৬ শতাংশ ও তার বেশি বজায় রাখার জন্য অর্থনীতির বাকি সব শাখাকে আরও দ্রুত বিকাশ করতে হবে. কুদ্রিনের কথায়, এ জন্য সুনির্দিষ্ট নিয়ম তৈরি করা দরকার, যাতে সকলে নিজের নিজের বিনিয়োগে স্থিরবিশ্বাসী থাকে. সরকার এবং সমস্ত ফেডারেল সংস্থার প্রশাসনের ফলপ্রসূ কাজ সুনিশ্চিত করা উচিত্. কুদ্রিন অনুমান করেন যে, তেলের উপর রাশিয়ার অর্থনীতির নির্ভরশীলতা দূর করার প্রক্রিয়া কঠিন হবে. ইন্টারভিউতে তিনি বলেন, “ভাল ও সুনির্দিষ্ট নিয়ম তৈরি করা উচিত, এবং তা পুতিন ও মেদভেদেভ উভয়েই বোঝেন”. সেই সঙ্গে তিনি উল্লেখ করেন যে, তাঁরা এটা বোঝেন “একটু ভিন্ন ভিন্ন ভাবে”. তবুও, কুদ্রিন এ স্থিরবিশ্বাস প্রকাশ করেন যে, ২০১২ সালের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে যে-ই জিতুক না কেন তা নির্বিশেষে রাশিয়া নিজের বিনিয়োগ পরিবেশ উন্নত করবে এবং সংস্কার সাধন করে যাবে”.