মুসলমান জগতের পাশ্চাত্যের সাথে খোলাখুলি সংলাপ গড়ে তোলা উচিত, এবং ঘোষণা করা উচিত্ যে, সন্ত্রাসবাদের সাথে ইস্লামের কোনো সম্পর্ক নেই. এ সম্বন্ধে মঙ্গলবার বলেছেন কাজাখস্তানের রাষ্ট্রপতি নুরসুলতান নজরবায়েভ ইস্লামিক সহযোগিতা সংস্থার (প্রাক্তন ইস্লামিক সম্মেলন সংস্থার) দেশগুলির শীর্ষসাক্ষাতে. নজরবায়েভ উল্লেখ করেন যে, “ইস্লামিক ধর্মীয় শিক্ষার মর্মের সাথে চরমপন্থী, উপরন্তু সন্ত্রাসবাদী বিন্যাসের ক্রিয়াকলাপের কোনো সম্পর্ক নেই”. কাজাখস্তানের রাষ্ট্রপতি সংস্থার দেশগুলিকে প্রস্তাব করেন বিশেষ ইন্টারনেট-রিসোর্স গঠন করতে, যা এ সংস্থার কার্যকলাপ সম্বন্ধে জানাবে, যুব সম্প্রদায়কে ইস্লামিক সংস্কৃতি ও ধর্মের প্রতি আকর্ষণ করবে, আধ্যাত্মিক মুসলমান মূল্যবোধের প্রচার করবে. ইস্লামিক সম্মেলন সংস্থার নতুন নামকরণ করা হয়েছে ইস্লামিক সহযোগিতা সংস্থা. তত্সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে আস্তানায় মঙ্গলবার সংস্থার ৩৮তম অধিবেশনের কাঠামোতে, জানিয়েছে “ইন্টারফাক্স” সংবাদ সংস্থা. অধিবেশনের অংশগ্রহণকারীরা সংস্থার নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত অনুমোদন করেন, এবং সংস্থার নতুন প্রতীক গ্রহণ করেন.