লিবিয়ার কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে যে, দেশের নেতা মুয়ম্মর গদ্দাফিকে গ্রেপ্তারের জন্য আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের পরোয়ানার বিধানিক ক্ষমতা নেই. ত্রিপোলির মতে, এ পরোয়ানা হল ন্যাটো জোটের সামরিক অভিযানের জন্য আড়াল মাত্র, জানিয়েছে “রয়টার” সংবাদ সংস্থা. আন্তর্জাতিক ফৌজদারি আদালতের অভিশংসক দপ্তর গদ্দাফির বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে ২০১১ সালের ফেব্রুয়ারী থেকে লিবিয়ায় মানবতাবাদের বিরুদ্ধে অপরাধ সাধনের. একই সঙ্গে, আফ্রিকা সংক্রান্ত রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির বিশেষ প্রতিনিধি মিখাইল মার্গেলোভের মতে, লিবিয়ার নেতাকে গ্রেপ্তারের পরোয়ানা রাজনৈতিক মীমাংসার জন্য পথ বন্ধ করে না. মার্গেলোভের মতে, ত্রিপোলি ৩০শে জুন  বিষুব অঞ্চলীয় গিনি-তে আফ্রিকান সঙ্ঘের যে শীর্ষ সাক্ষাত্ শুরু হচ্ছে, তা “বাস্তববাদী উদ্যোগ” উথ্থাপন এবং দেশের পরিস্থিতি মীমাংসার জন্য ব্যবহার করতে পারে.