0লিবিয়ার বিরোধী জাতীয় কার্যনির্বাহী পরিষদের সভাপতি মাহমুদ জিব্রিল ২১-২২শে জুন চীন সফর করবেন. এ সম্বন্ধে বলা হয়েছে সোমবার প্রচারিত চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সরকারী প্রতিনিধি হুন লেয়া-র বিবৃতিতে. বিজিংয়ে লিবিয়ার বিরোধীপক্ষের সাথে আসন্ন আলাপ-আলোচনার খুঁটিনাটি সম্বন্ধে জানানো হয় নি. চীন একাধিকবার ঘোষণা করেছে যে, চীন রাজনৈতিক পথে এবং বল প্রয়োগ না করে লিবিয়া সঙ্কটের মীমাংসার উপর জোর দিচ্ছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছ থেকে পাওয়া ম্যান্ডেট ছাড়িয়ে ক্রিয়াকলাপ চালানোর জন্য চীন ন্যাটো জোটের নেতৃত্বাধীন কোয়ালিশনের সমালোচনা করেছে. বিজিং বিগত এক মাসে সক্রিয়ভাবে য়োগাযোগ রাখছে যেমন সরকারী ত্রিপোলির প্রতিনিধিদের সাথে, তেমনই বিরোধীপক্ষের সাথে. জুন মাসের গোড়ার দিকে লিবিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দেলাতি আল-ওবেইদি চীন সফর করেন. তাঁর সাথে সাক্ষাত্ করেন চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়ান জেচি. এ সাক্ষাতে চীনা কূটনীতিজ্ঞ শান্তিপূর্ণ উপায়ে লিবিয়া সঙ্কট মীমাংসার আহ্বান জানান. ইয়ান জেচি জোর দিয়ে বলেন দেশে মানবতাবাদী বিপর্যয় এড়ানোর প্রয়োজনীয়তার কথা. আগে লিবিয়ার অন্তর্বর্তী জাতীয় পরিষদের সাথে সাক্ষাত্ করেছিলেন মিশরে অ্যাক্রেডিটেশন পাওয়া চীনা কূটনীতিজ্ঞরা.