মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রবার্ট গেটস এ কথা সমর্থন করেছেন যে, আফগানিস্তানে তালিবদের সাথে “প্রাথমিক” আলাপ-আলোচনা চালানো হচ্ছে. প্রতিরক্ষামন্ত্রী “সি.এন.এন” টেলিচ্যানেলকে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে জানান, “আলাপ-আলোচনা চালানোর উদ্যোগ প্রকাশিত হয়েছে খাস মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সহ একসারি দেশের তরফ থেকে”. তিনি উল্লেখ করেন নি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ছাড়া আর কোন্ কোন্ দেশ এ আলাপ-আলোচনার সাথে যুক্ত. পেন্টাগনের নেতা বলেন যে, আলাপ-আলোচনার প্রক্রিয়া রয়েছে প্রাথমিক পর্যায়ে. গেটস জোর দিয়ে বলেন যে, এ সব যুদ্ধের ইতি টানা যেতে পারে শুধু রাজনৈতিক উপায়ে. সেই সঙ্গে গেটস উল্লেখ করেন যে, আপোষ সম্বন্ধে বাস্তব আলাপ-আলোচনা শীতের আগে শুরু হবে না. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই প্রথম সরকারীভাবে স্বীকার করেছে তালিবদের সাথে সংলাপ চালানোর ঘটনা. আফগানিস্তানের রাষ্ট্রপতি হামিদ কার্জাই নিজে “তালিবান” আন্দোলনের সাথে শান্তির আলাপ-আলোচনা শুরু হওয়ার কথা ঘোষণা করার একদিন পরে এ ঘটনাটি ঘটেছে. আফগানিস্তান থেকে মার্কিনী সৈনিকদের অপসারণ শুরু হওয়ার কথা জুলাই মাসেই. ২০১৪ সাল নাগাদ দেশে নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার দায়িত্ব ধীরে ধীরে আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে সমর্পণ করার পরিকল্পনা আছে. এ সময়ের মধ্যে কাবুল তালিবদের সাথে সমঝোতায় আসার পরিকল্পনা করছে.