চীন উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার মাঝে এবং তাছাড়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সংলাপ শুরু করার পক্ষে মত প্রকাশ করছে. এ সম্বন্ধে ভিয়েনায় বলেছেন রাষ্ট্রসঙ্ঘে এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থায় চীনের প্রতিনিধির সহকারী হুয়ান ভেই. তিনি উল্লেখ করেন যে, এটা কোরিয়া উপদ্বীপে পারমাণবিক সমস্যা সংক্রান্ত ছয়পাক্ষিক আলাপ-আলোচনার পুনরারম্ভে সাহায্য করবে. আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে হুয়ান ভেই স্বীকার করেন যে, কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক অস্ত্রমুক্ত এলাকায় পরিণত করার প্রক্রিয়া মন্থর হয়েছে, দু বছর ধরে আলাপ-আলোচনা চালানো হচ্ছে না, আর তা কোনো পক্ষেরই স্বার্থের সাথে সুসঙ্গত নয়. চীন মনে করে যে, কোরীয় উপদ্বীপের পারমাণবিক প্রশ্ন মীমাংসা করা উচিত আলাপ-আলোচনার এবং শান্তিপূর্ণ উপায়ে পরামর্শের পথে. ছয়পাক্ষিক আলাপ-আলোচনা শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখা, কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণুমুক্ত এলাকায় পরিণত করার ফলপ্রসূ ব্যবস্থা, - জোর দিয়ে বলেন কূটনীতিজ্ঞ. কোরীয় উপদ্বীপকে পরমাণুমুক্ত এলাকায় পরিণত করা সংক্রান্ত আলাপ-আলোচনায় অংশগ্রহণ করছে উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান, চীন, রাশিয়া এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র.