ইয়েমেনের রাষ্ট্রপতি আলি আব্দাল্লা সালেহ দু সপ্তাহ পরে সৌদি আরব থেকে দেশে ফিরতে পারেন. এ সম্বন্ধে মেডিকেল উত্সকে উদ্ধৃত করে জানিয়েছে “আল-আরাবিয়া” স্পুতনিক টেলি-চ্যানেল. গত শুক্রবার সানায় রাষ্ট্রপতির প্রাসাদে গোলা বর্ষণের সময় তিনি আহত হন. এর-রিয়াদে তাঁর শরীরে অপারেশন করা হয়. সালেহ-র জ্ঞান ফিরেছে এবং সৌদি আরবের সরকারী প্রতিনিধির সাথে তাঁর সাক্ষাত্ হয়েছে. সংবিধানের দাবি অনুযায়ী আনুষ্ঠানিকভাবে ইয়েমেনে শাসন ক্ষমতা এসেছে উপ-রাষ্ট্রপতি আব্দ রাব্বো মানসুর হাদি-র হাতে. তিনি সশস্ত্র বিরোধীপক্ষের সাথে আপোষের উদ্যোগ প্রকাশ করেন. আগে সরকারী “সাবা” সংবাদ এজেন্সি এ খবর চূড়ান্তভাবে খন্ডন করেছিল যে, সালেহ-র পরিবারের সদস্যরা তাঁর সঙ্গে দেশ ছেড়ে গেছে. ইয়েমেনে বিরোধীপক্ষ সালাহ-র বিদেশ যাত্রায় আনন্দ পালন করতে শুরু করেছে, তবে ক্ষমতাসীন পার্টির সরকারী প্রতিনিধি তারেক আশ-শামি বলেন যে, রাষ্ট্রপতি “বিদেশযাত্রা থেকে ফেরার সঙ্গে সঙ্গেই” নিজের কর্ম-দায়িত্ব পালন করতে শুরু করবেন.