ইউরোসঙ্ঘ নিজের পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রগুলির স্ট্রেস-টেস্ট পরিচালনা শুরু করেছে. স্ট্রেস-টেস্ট পরিচালনার সিদ্ধান্ত ইউরোসঙ্ঘের দেশগুলিতে একমতে গৃহীত হয় জাপানের “ফুকুসিমা-১” পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে মার্চ মাসের দুর্ঘটনার পরে. বিদ্যুত্শক্তি সংক্রান্ত ইউরো-কমিশনার গিউন্টার এটিঙ্গার আগে ব্যাখ্যা করে বলেন যে, ইউরোপীয় পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রগুলিতে এই স্ট্রেস-টেস্ট পরিচালিত হবে তিন পর্যায়ে – পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রের অপারেটারদের দ্বারা, জাতীয় পারমাণবিক এজেন্সিগুলির দ্বারা এবং ইউরোপীয় পর্যায়ে – ইউরোকমিশন এবং ইউরোসঙ্ঘের পরিষদের দ্বারা. স্ট্রেস-টেস্টের মানদন্ডে অন্তর্ভুক্ত হবে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের ক্ষেত্রে, বিশেয করে ভূমিকম্প ও বন্যা এবং তাছাড়া বিভিন্ন টেকনোজেনিক দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে পারমাণবিক কেন্দ্রের নির্ভরযোগ্যতা পরীক্ষা করা. তাছাড়া, মানদন্ডে অন্তর্ভুক্ত আছে মানবিক উপাদানের দরুণ দেখা দেওয়া বিভিন্ন ঝুঁকির ক্ষেত্র – যেমন, পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে অপারেটারের ভুল থেকে শুরু করে কেন্দ্রে সন্ত্রাসবাদী ক্রিয়া অথবা কেন্দ্রের উপর বিমান পড়া পর্যন্ত নানা ক্ষেত্র.