লিবিয়ার পরিস্থিতি মীমাংসায় মধ্যস্থের ভূমিকা গ্রহণের জন্য রাশিয়াকে অনুরোধ করেছেন “বৃহত্ আট” দেশগুলির নেতারা. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার রাষ্ট্রপতির প্রেস-সেক্রেটারি নাতালিয়া তিমাকোভা. এ ব্যাপারে কোনো বিরোধিতা নেই, জোর দিয়ে বলেন তিমাকোভা. মস্কো মনে করে লিবিয়ায় সামরিক ক্রিয়াকলাপ বন্ধ করা এবং পরিস্থিতিকে রাজনৈতিক ধারায় নিয়ে আসার সমঝোতা সম্ভব. এ সম্বন্ধে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ বলেছেন লিবিয়ার প্রধানমন্ত্রী বাগদাদী মাহমুদীকে. বৃহস্পতিবার তাঁদের টেলিফোন-আলাপ হয়েছে লিবিয়ার পক্ষের উদ্যোগে. রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সব পক্ষের দ্বারা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত কঠোরভাবে পালন করার প্রয়োজনীয়তা সংক্রান্ত রাশিয়ার মূলনীতিগত অবস্থানের কথা পুনরায় সমর্থন করেন. কথা হচ্ছে বেসামরিক অধিবাসীদের মাঝে হতাহত হতে পারে এমন যেকোনো ক্রিয়াকলাপ ঘটতে না দেওয়ার. লাভরোভ উল্লেখ করেন যে, লিবিয়াকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি সামরিক ক্রিয়াকলাপ বন্ধ করার এবং পরিস্থিতিকে রাজনৈতিক ধারায় নিয়ে যাওয়ার সুযোগ দিচ্ছে. বাইরের হস্তক্ষেপ ছাড়া লিবিয়ার সমস্ত রাজনৈতিক শক্তি ও উপজাতির প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণে আলাপ-আলোচনা শুরু করার পক্ষে রাশিয়া মত প্রকাশ করে.