0পাক প্রধান মন্ত্রী ইউসুফ রাজা গিলানি মন্তব্য করেছেন যে, তাঁদের দেশের সামরিক বাহিনী ও গুপ্তচর সংস্থা ওসামা বেন লাদেনকে সাহায্য করেছিল দেশে লুকিয়ে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপের নেতৃত্ব দিতে, এই অভিযোগ ভিত্তি হীণ. আমেরিকার বিশেষ বাহিনী আকাশ পথে উড়ে এসে ২রা মে ভোর রাতে পাকিস্তানের রাজধানী থেকে মাত্র তিরিশ কিলোমিটার দূরের সম্ভ্রান্ত এলাকা এবত্তাবাদে বেন লাদেনকে একটি বাড়ীতে গুলি করে মেরে, পরে সমুদ্রে ভাসিয়ে দিয়েছে বলে দাবী করেছে. এই সংবাদের যথার্থতা নিয়েও বিশ্বে প্রচুর প্রশ্নের উদয় হয়েছে. এমতাবস্থায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও পাকিস্তানের মতো দুই স্ট্র্যাটেজিক ভাবে সহযোগী রাষ্ট্রের স্বার্থের কারণে ঘনিষ্ঠতা স্বত্ত্বেও এই ধরনের চাপান উতোর সন্দেহের সৃষ্টি করেছে যে, এই কাজ হয়তো করা হচ্ছে বেন লাদেনের মৃত্যু বিষয়ে বিশ্বকে নিঃসন্দেহ করার উদ্দেশ্য নিয়ে. কারণ ওসামা বেন লাদেনের সঙ্গে মার্কিন গুপ্তচর সংস্থার যোগাযোগ ও পাকিস্তানের আন্তর্বিভাগীয় গুপ্তচর ও শক্তি প্রয়োগ বাহিনীর যোগাযোগ বিশ্বে কারও কাছেই অজানা নয়. এই ক্ষেত্রে রাশিয়া মনে করেছে ইতিহাসকে না ভুলে বর্তমানের ঘটনা ক্রমের বিচার করাই হবে প্রকৃত কাজ.