জাপানের সরকার স্বীকার করেছে যে, ফুকুসিমা-১ পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনার ফলে তেজষ্ক্রিয়তা প্রসারের মূল্যায়ন এবং অন্ততপক্ষে ৫ হাজার মাপনীর ফলাফল গোপন রেখেছিল. তা করা হয়েছিল, যাতে আতঙ্ক দেখা না দেয়, এ সম্পর্কে আজ সাংবাদিকদের জানিয়েছেন পারমাণবিক কেন্দ্রে দুর্ঘটনার কুপরিণতি দূর করা সংক্রান্ত ঐক্যবদ্ধ সদর দপ্তরের সচিবালয়ের প্রধান, দেশের প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা গোসি হোসোনো. তিনি স্বীকার করেন, এমন স্থিতি ছিল ভুল. প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা আশ্বাস দেন যে, এখন থেকে ফুকুসিমা-১ পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্র সংক্রান্ত সমস্ত তথ্য অবিলম্বে প্রকাশ করা হবে. পত্র-পত্রিকার তথ্য অনুযায়ী, ফুকুসিমা-১ পারমাণবিক বিদ্যুত্ কেন্দ্রে দুর্ঘটনা দেখিয়েছে যে তেজষ্ক্রিয়তা সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহের এবং তা প্রসারের পূর্বাভাষের যে ব্যবস্থা দেশে গঠিত হয়েছিল তা অ-ফলপ্রসূ.