পয়লা মে ভোর রাত্রে ন্যাটো জোটের বিমান হানার পরে লিবিয়ার নেতা মুহম্মর গাদ্দাফি বেঁচে গিয়েছেন. লিবিয়ার বিপ্লবের নেতার ছোট ছেলে সৈফ আল-আরব গাদ্দাফি নিহত. এই বিমান হানার ফলে লিবিয়ার নেতার তিনজন নাতিও মারা পড়েছে. ন্যাটো জোটের প্রতিনিধি ত্রিপোলি শহরে বোমা বর্ষণের কথা সমর্থন করেছে. একই সঙ্গে জোটের প্রতিনিধি এই ধারণাকে অস্বীকার করেছেন যে, বোমা বর্ষণের উদ্দেশ্য ছিল গাদ্দাফির পরিবার. “আঘাত হানা হয়েছে সামরিক লক্ষ্যতে” – তিনি বলেছেন.

এর আগে ন্যাটো জোটের প্রতিনিধিরা ও লিবিয়ার গাদ্দাফির প্রতিপক্ষ অগ্নি সংবরণের উদ্দেশ্যে গাদ্দাফির প্রস্তাব অস্বীকার করেছিল.