কেউ অন্যান্য রাষ্ট্রের নেতাদের মুয়াম্মর গাদ্দাফির প্রাণ নাশের অধিকার দেয় নি. এ সম্বন্ধে বলেছেন রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমির পুতিন কোপেনহেগেনে ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী লার্স লেক্কে রাসমুসেনের সাখে আলাপ-আলোচনার পরে সাংবাদিক সম্মেলনে. রাশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মনে করিয়ে দেন গাদ্দাফিকে হত্যা না করা সম্পর্কে পশ্চিমী দেশগুলির আশ্বাস সম্বন্ধে, যা এখন তাকে ধ্বংস করার মতে পরিবর্তিত হচ্ছে. পুতিন নিজের বিষ্ময় প্রকাশ করে বলেন, “মানুষটি যেমনই হোক না কেন তার প্রাণ নেওয়ার অধিকার কে গ্রহণ করেছে? আদালতে বিচার হয়েছিল কি?” তিনি মনে করিয়ে দেন লিবিয়ার আকাশ-সীমা বন্ধ করা সম্বন্ধে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের মার্চ মাসের সিদ্ধান্তের কথা, যার সাথে রাষ্ট্রপতির বাসভবনের উপর বোমা বর্ষণের কোনো সঙ্গতি নেই. প্রধানমন্ত্রী অনুমান করেন যে, এ রাষ্ট্রের ব্যাপারে বাইরের সক্রিয় হস্তক্ষেপের কারণ হল এ দেশে বিপুল সংখ্যক তেলের খনির অস্তিত্ব.