ভারত রাশিয়ার সাথে একত্রে মহাকাশে ইউটস্যাট স্পুতনিক পাঠিয়েছে. তা পৃথিবীতে তথ্য পাঠাবে, যা পৃথিবীর বায়ুমন্ডলের উপরের স্তরে সৌর সক্রিয়তার কম্পনের প্রভাব বুঝতে সাহায্য করবে. রাশিয়ার তরফ থেকে এ প্রকল্পে প্রতিনিধিত্ব করছে মস্কো বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা, যারা স্পুতনিকের জন্য তৈরি করেছে এক্স-রে ও গামা-রশ্মি বিকিরণের প্রবাহ সোলরাড মাপার ষন্ত্র. তাছাড়া ইউটস্যাটে বসানো হয়েছে আয়ন মাপার যন্ত্র এবং বায়ুমন্ডলের আলোক-প্রভার ছবি পাওয়ার সরঞ্জাম. প্রাপ্ত তথ্য বিশ্লেষণের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ভারতের অন্ধ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রদের.