মিশরের প্রধান অভিশংসক দপ্তর প্রাক্তন রাষ্ট্রনেতা হোসনি মুবারককে ১৫ দিনের জন্য আটক করার নির্দেশনামা জারি করেছে. প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির বিরুদ্ধে তদন্ত চালানো হচ্ছে সরকারবিরোধী মিছিলে অংশগ্রহণকারীদের বিরুদ্ধে বলপ্রয়োগ সংক্রান্ত ঘটনা সম্পর্কে. তদন্ত নির্ধারণ করছে, মুবারক অস্ত্র ব্যবহারের নির্দেশ দিয়েছিলেন কি না. তাছাড়া, তাঁকে সন্দেহ করা হচ্ছে রাষ্ট্রীয় অর্থ হস্তগত করার. এর আগে ১৫ দিনের জন্য আটক করা হয়েছিল তাঁর দুই ছেলেকে, দুর্নীতিপরায়ণতা এবং সরকারবিরোধী মিছিল দমনে তাদের জড়িত থাকার সম্ভাবনা সম্বন্ধে জানার জন্য. মিশরের প্রাক্তন নেতাকে এর প্রাক্কালে শার্ম-এশ-শেখে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে উঁচু রক্ত-চাপ ও হার্টের সমস্যার জন্য. ১৯৮১ সাল থেকে শাসন ক্ষমতায় থাকা দেশের রাষ্ট্রপতি হোসনি মুবারক ১১ই ফেব্রুয়ারী রাষ্ট্রনেতার দায়িত্ব ত্যাগ করেন. তাঁর অবসর গ্রহণের আগে ২৫শে জানুয়ারী থেকে দেশে গণ-আন্দোলন চলছিল.