রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা পৃথিবীর আবর্তনের কক্ষ সরে যাওয়া সংক্রান্ত কোনো তথ্য পান নি, যা একসারি প্রচার মাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ঘটেছে জাপানে ১১ই মার্চের বিপর্যয়কর ভূমিকম্পের পরে. এ সম্বন্ধে “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন পৃথিবীর আবর্তনের সময়, হার ও সূচক নির্ধারণ সংক্রান্ত রাষ্ট্রীয় সেবা ব্যবস্থার প্রধান আবহ কেন্দ্রের পরিচালক মিখাইল বালাখানোভ. আগে ইতালির জাতীয় ভূপদার্থবিদ্যা ও আগ্নেয়গিরি-তত্ত্ব ইনস্টিটিউট জানিয়েছিল যে, জাপানের ভূমিকম্পের ফলে পৃথিবীর আবর্তনের অক্ষ প্রায় ১০ সেন্টিমিটার সরে গেছে. পৃথিবীর আবর্তনের অক্ষ নির্ধারণের জন্য রাশিয়ার বিশেষজ্ঞরা ব্যবহার করেন পৃথিবীর বিভিন্ন জায়গায় স্থাপিত রেডিও-টেলিস্কোপ জুটির তথ্য একই সময়ে মাপার ব্যবস্থা, “জি.পি.এস” ও “গ্লোনাস” তথ্য-গ্রাহক ব্যবস্থা, এবং তাছাড়া স্পুতনিকে স্থাপিত লেসার দূরত্ব মাপক যন্ত্র.