রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ আগামী বৃহস্পতিবার লিবিয়াকে কেন্দ্র করে পরিস্থিতি আলোচনা করবে. পরামর্শ বৈঠক আহ্বান করা হচ্ছে এজন্য যে, নিরাপত্তা পরিষদের কয়েক সদস্য “যা ঘটছে তার বৈধতায় সন্দেহ প্রকাশ করছে”. নিরাপত্তা পরিষদ তাছাড়া লিবিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুসা কুসা-র চিঠিগুলিও আলোচনা করতে চায়. এমন একটি বার্তা রাষ্ট্রসঙ্ঘের কাছে পাঠানো হয়েছিল সামরিক অভিযান শুরু হওয়ার পরে. লিবিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জামাহিরির বিরুদ্ধে বাইরের ষড়যন্ত্রের এবং এ বিষয়ের কথা বলছে যে, নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্ত “সামরিক আগ্রাসনের জন্য পথ উন্মুক্ত করেছে”.