রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ লিবিয়া সংক্রান্ত থসড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে একমতে আসতে পারে নি. রাষ্ট্রসঙ্ঘে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্থায়ী প্রতিনিধি স্যুজান রাইস সাংবাদিকদের বলেছেন যে, নিরাপত্তা পরিষদ লিবিয়া সংক্রান্ত খসড়া সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক ক্রমানুবর্তন করবে বৃহস্পতিবার. কূটনীতিজ্ঞরা লিবিয়ায় উড্ডয়ন-নিষিদ্ধ এলাকা গঠনের সম্ভাবনা আলোচনা করেছেন. তাঁদের মতে, এ ব্যবস্থার উদ্দেশ্য হল বিরোধী পক্ষের দ্বারা নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলগুলিকে সরকারী বাহিনীর বিমান আঘাত থেকে বাঁচানো. সাংবাদিকরা জানতে পেরেছে যে, লেবাননের প্রতিনিধিদলের দ্বারা প্রস্তাবিত খসড়া সিদ্ধান্তে উড্ডয়ন-নিষিদ্ধ এলাকা ছাড়া অস্ত্র সরবরাহে বাধানিষেধ প্রসারের কথা বলা হয়েছে, এবং তাছাড়া বাধানিষেধের তালিকায় লিবিয়ার নেতৃবৃন্দের আরও একসারি প্রতিনিধির নাম অন্তর্ভুক্ত করার প্রস্তাব করা হচ্ছে. ২৭শে ফেব্রুয়ারী রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ লিবিয়ার নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে. এ সব ব্যবস্থার মধ্যে আছে - ত্রিপোলির সাথে অস্ত্র ব্যবসায়ে নিষেধাজ্ঞা, গাদ্দাফি, তাঁর পরিবার ও তাঁর একসারি নিকট ব্যক্তির অ্যাকাউন্ট স্থগিত রাখা এবং তাঁদের বিদেশ যাত্রায় নিষেধাজ্ঞা.