জাপানের পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রে দুর্ঘটনার জন্য রাশিয়ার দূরপ্রাচ্যের ভূভাগে তেজষ্ক্রিয় মলিনতার সম্ভাবনা কম, জানানো হয়েছে বিপর্যয় নিরসন মন্ত্রণালয়ে. বিশেষজ্ঞদের মূল্যায়ন অনুযায়ী, আগামী কয়েক দিনে জাপানে জরুরী পরিস্থিতির এলাকায় পশ্চিমী বাতাসের আধিক্য থাকবে, সেইজন্য বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্র থেকে বায়ুমন্ডলে সম্ভাব্য নির্গমণ প্রশান্ত মহাসাগরের জলে মিশে যাবে. তবুও, রাশিয়ার দূরপ্রাচ্যের এলাকায় দিন-রাত তেজষ্ক্রিয়তার মনিটরিং করা হচ্ছে. খাবারোভস্ক অঞ্চলেও প্রতি ঘন্টায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের ব্যবস্থা প্রবর্তিত হয়েছে. দূরপ্রাচ্য সামরিক অঞ্চলের অধিনায়কমন্ডলী সামরিক বাহিনী মোতায়েন করা কুরিল দ্বীপপুঞ্জে তেজষ্ক্রিয় মলিনতার ক্ষেত্রে জরুরী ব্যবস্থা গ্রহণের পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে. বিপদ দেখা দিলেই এ বাহিনীকে অপসারণ করা হবে. জাপানে ধ্বংসাত্মক ভূমিকম্প “ফুকুসিমা” পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রে জরুরী পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে. সেখানে তিনটি বিস্ফোরণ ঘটে, যার ফলে তেজষ্ক্রিয়তা ছড়িয়েছে.