জাপানে স্মরণকালের শক্তিশালী ভূমিকম্পের আঘাত,কয়েক দফায় সুনামি এবং সর্বশেষে পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্রে বিস্ফোরণের পর পুরো দেশেই এখন উত্কন্ঠা বিরাজ করছে.নতুন ভূমিকম্পের আশঙ্কায় দিন কাটাচ্ছেন জাপানীরা.সর্বশেষ ১৩ মার্চ জাপানের রাজধানীর নিকটে রিখটার স্কেলে ৬.৪ মাত্রার ভূমিকম্প আঘাত হানলে তা সুনামির বিপদ সংকেত প্রদান করেছে.এদিকে জাপান সরকারের নির্দেশে  হতাহতদেরকে বিভিন্ন সাহায্য প্রদানের জন্য ১ লাখ সামরিক সৈন্য কাজ করছে.  জাপানের মন্ত্রীপরিষদের জেনারেল সেক্রেটারী ইউকিও এদানো জানান যে,দুইটি  পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্রে বিস্ফোরণের পর সেখান থেকে বাষ্প উদগিরনের হার কমে আসছে.ফুকুসিমা-১ নামের পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্রটি যে এলাকায় অবস্থিত সেখানের স্থানীয় নিবাসীদের শারিরিক চিকিত্সার জন্য মেডিকেল ক্যাম্প বসানো হয়েছে.আন্তর্জাতিক পারমানবিক শক্তি সংস্থা ফুকুসিমা-১ এর দূর্ঘটনাকে ৪ নম্বর ধাপ বলে উল্লেখ করেছে.আন্তর্জাতিকভাবে পারমানবিক বিদ্যুতকেন্দ্রের দূর্ঘটনার সর্বোচ্চ ৮ ধাপ পর্যন্ত সুনির্দিষ্ট থাকে.

জাপানের উত্তর-পূর্বে ভূমিকম্প ও সুনামির আঘাতে নিহত ও নিখোঁজ মানুষের সংখ্যা ২০০০ এ পৌঁছেছে.হতাহতের মধ্যে কোন রুশি নাগরিক নেই.