রাশিয়ার পতাকা অবমাননা করা রাডিক্যালদের শাস্তি দিতে জাপান অস্বীকার করেছে. এ সম্পর্কে “রিয়া নোভস্তি” সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছে টোকিওতে রাশিয়ার দূতাবাসের এক উত্স. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, রাশিয়া জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক নোট পাঠিয়েছে, যাতে বিদেশী রাষ্ট্রের রাষ্ট্রীয় প্রতীক ধ্বংস করা সংক্রান্ত আইনের ধারার ভিত্তিতে ৭ই ফেব্রুয়ারী রাশিয়ার পতাকার অবমাননা করা ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ফৌজদারী শাস্তি দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে.. কিন্তু জাপানী পক্ষ এই অতি-দক্ষিণপন্থীদের ক্রিয়াকলাপে কোনো অপরাধ দেখতে পায় নি. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পরে সোভিয়েত ইউনিয়েনের হাতে চলে আসা, যার উত্তরাধিকারী রাশিয়া, ইতুরুপ,কুনাশির, শিকোতান ও হাবোমাই দ্বীপগুলির দাবি করছে জাপান. মস্কোর স্থিতি হল এই যে, এ দ্বীপগুলির উপর রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব রয়েছে, যা আন্তর্জাতিক বিধান অনুযায়ী সূত্রবদ্ধ, এবং তাতে সন্দেহের অবকাশ নেই.