রাশিয়া বিনা খরচে নিজের ভূভাগ হয়ে আফগানিস্তানে ন্যাটো জোটের মালপত্র ও সৈন্যবাহিনী প্রেরণের সুযোগ দিয়েও ঐ দেশে হেরোইনের উত্পাদনের বিরুদ্ধে সংগ্রামে জোটের অপ্রস্তুতি সম্পর্কে বুঝতে পারছে না. ইতালির টস্কানা প্রদেশের সরকারের বৈঠকে বক্তৃতা দিয়ে এ সম্পর্কে বলেছেন রাশিয়ার ফেডারেল নার্কোটিক নিয়ন্ত্রণ বিভাগের অধিকর্তা ভিক্তর ইভানোভ. তাঁর কথায়, রাষ্ট্রসঙ্ঘের তথ্য দেখিয়েছে যে, ২০০১ সালে ন্যাটো জোটের নেতৃত্বে কোয়ালিশন বাহিনীর অভিযানের শুরু থেকে আফগানিস্তানে উত্পাদিত হেরোইনের পরিমাণ ৪০ গুণ বেড়েছে. ইভানোভ বলেন, “পৃথিবীর মোট হেরোইনের ৯০ শতাংশের উপর উত্পাদিত হয় আফগানিস্তানেই”. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, নার্কোটিক বিক্রি থেকে প্রাপ্ত লক্ষ কোটি ডলার পেয়েছে বিশ্বব্যাপী অপরাধী মহল, সেই সঙ্গে সন্ত্রাসবাদের জাল.