নিকট প্রাচ্য এলাকায় পরিবর্তন রাশিয়ার স্বার্থ স্পর্শ করে, বলা হয়েছে মস্কোয় প্রচারিত পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে. তাতে জোর দিয়ে বলা হয়েছে যে, এখন সর্বাধিক মনোযোগ দেওয়া দরকার নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার দেশগুলিতে অবস্থিত রাশিয়ার নাগরিকদের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার প্রতি. প্রাধান্যমূলক কর্তব্যের মধ্যে উল্লেখ করা হয়েছে নতুন পরিবেশে রাশিয়ার স্থিতি সুদৃঢ় করা. পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে উল্লেখ করা হচ্ছে গভীর রূপান্তরের পর্যায়ের কথা, যা “যেমন পৃথক পৃথক নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকীয় দেশ তেমনই আঞ্চলিক রাজনৈতিক চালচিত্রকে স্পর্শ করে”. এদিকে রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ আরব রাষ্ট্রগুলির লীগের প্রধান সচিব আম্র মুসার সাথে টেলিফোন আলাপে বলেন যে, নিকট প্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকার দেশগুলির ঘটনাবলিতে “বাইরের চাপের” চেষ্টা রাশিয়া গ্রহণ করবে না. লাভরোভ এ অঞ্চলের দেশগুলিতে গণতান্ত্রিক রূপান্তরের কাজে গঠনমূলক পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপের পক্ষে মত প্রকাশ করেন. তাঁর স্থিরবিশ্বাস যে, দেখা দেওয়া আভ্যন্তরীন রাজনৈতিক সমস্যাবলি মীমাংসা করা উচিত শান্তিপূর্ণ উপায়ে, জাতীয় সংলাপের মাধ্যমে.