বিশ্ব সমাজ লিবিয়া সরকারের শান্তিপূর্ণ মিছিলে যোগ দেওয়া বিক্ষোভ কারীদের উপরে দমনের কাজকে কড়া সমালোচনা করেছে. বুধবার ভোর রাতে গৃহীত রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বিশেষ ঘোষণায় অবিলম্বে শক্তি প্রয়োগ বন্ধ করতে বলা হয়েছে. জনগনের উপরে যারা আক্রমণ করেছিল, সেই দোষী লোকেদের শাস্তি দিতে আহ্বান করা হয়েছে বিচার সভায় উপস্থিত করে. এছাড়া, নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা লিবিয়াতে বিদেশী জনগনের নিরাপত্তার বিষয়ে খুবই উদ্বিগ্ন. রাষ্ট্রসংঘের পক্ষ থেকে সেই দেশের নেতৃত্বকে শান্তি বজায় রাখতে ও মানবাধিকার রক্ষা করতে আহ্বান করা হয়েছে.

    বিগত ৪২ বছর ধরে দেশের নেতৃত্বে থাকা মুহম্মর গাদ্দাফি কে পদত্যাগ করতে দাবী করে দেশের নানা রাজ্যে ১৫ই ফেব্রুয়ারী থেকে নানা ধরনের প্রতিবাদ করা হচ্ছে. সরকার খুবই নৃশংস ভাবে এই প্রতিবাদকে দমন করছে. লিবিয়া সরকারের তথ্য অনুযায়ী গণ্ডগোলে ১১১ জন সৈনিক ও ১৮৯ জন অসামরিক ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছেন. একই সময়ে মানবাধিকার রক্ষা সংস্থা গুলির তথ্য অনুযায়ী নিহতদের সংখ্যা কয়েক শো ছাড়িয়েছে.