২৩ শে ফেব্রুয়ারী রাশিয়াতে পিতৃভূমি রক্ষী দিবস পালিত হচ্ছে, বেসরকারি ভাবে এই দিনটিকে মনে করা হয় সমস্ত পুরুষদের উত্সবের দিন. ২৩শে ফেব্রুয়ারী রাশিয়ার লোকেরা সমস্ত সেনা বাহিনীর লোক, পদাতিক, বিমান ও নৌবাহিনীর ভেটেরানদের ও যাঁরা দেশ রক্ষার কাজে নিযুক্ত রয়েছেন, তাঁদের সকলকে ও তাঁদের পরিবার পরিজনদের সম্মান জানিয়ে থাকেন. রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ টুইটার সাইটে সমস্ত রাশিয়ার লোকেদের পিতৃভূমি রক্ষী দিবস উপলক্ষে অভিনন্দন জানিয়েছেন. তিনি লিখেছেন – আমি রাশিয়ার সমস্ত রক্ষী দের আমাদের দেশ রক্ষার কাজের জন্য অভিনন্দন জানাই, রাশিয়ার প্রয়োজন শান্তির. এর অর্থ হল, আমাদের শক্তিশালী হতে হবে. উত্সবের প্রাক্কালে মস্কোর সমস্ত যুব সংগঠন গুলি সেনা বাহিনীর কবর খানা ও স্মৃতি সৌধ গুলিকে পরিচ্ছন্ন করেছেন ও ১৯৪১ থেকে ১৯৪৫ সালের মহান পিতৃভূমি রক্ষার যুদ্ধে যাঁরা অংশ নিয়েছিলেন, সেই সমস্ত ভেটেরানদের সঙ্গে নিয়ে মস্কো উপকণ্ঠের সমস্ত বীর সেনা স্মৃতি সৌধ গুলিতে গিয়েছিলেন. রাশিয়াতে আজ অনেক উত্সবের অনুষ্ঠান হবে. ঐতিহ্য মেনেই রাশিয়ার নেতৃত্ব অজানা সৈনিকদের স্মৃতির উদ্দেশ্যে অনির্বাণ শিখার সামনে পুষ্প মাল্য দান করবেন. সন্ধ্যায় মস্কো ও অন্যান্য বীর শহরে হাজার কামান ও স্যালুট জানানোর বন্দুক থেকে তিরিশ বার করে আকাশে আতসবাজি জ্বালিয়ে দেশের সমস্ত জীবিত মানুষদের শান্তির জন্য যাঁরা প্রাণ দিয়েছেন ও রক্ষার কাজে আজও অটল ভাবে রয়েছেন, তাঁদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হবে.