দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়ার সময় থেকে এই প্রথম জাপানে গঠিত হচ্ছে গোপন বৈদেশিক গোয়েন্দা বিভাগ, যা সর্বপ্রথমে নির্দেশিত চীন, উত্তর কোরিয়া সম্পর্কে এবং সন্ত্রাসবাদীদের সম্ভাব্য ক্রিয়াকলাপ সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের জন্য. এর প্রমাণ দেয় অস্ট্রেলিয়ার পত্রপত্রিকায় আজ প্রকাশিত টোকিওতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দূতাবাসের দ্বারা প্রেরিত গোপন টেলিগ্রাম, যা “উইকিলিক্স” নেটওয়ার্কের হাতে এসেছে. জানানো হচ্ছে যে, নতুন বিন্যাস গঠিত হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরের অধ্যয়ন ব্যুরোর কাঠামোতে. তার উদ্দেশ্য হল জাপানের সরকারকে গোপন ও বিশ্লেষণাত্মক তথ্য জোগানো. বিশেষজ্ঞদের মূল্যায়ন অনুযায়ী, সম্প্রতিকাল পর্য়ন্ত বিদেশে টোকিওর পূর্ণপরিসরের গোয়েন্দা জাল ছিল না. এই “উইকিলিক্স” সাইট কেলেঙ্কারীজনক খ্যাতি অর্জন করেছে মার্কিনী কর্তৃপক্ষের লক্ষ লক্ষ গোপন দলিল প্রকাশ করে. প্রথমে এ ছিল ইরাকে ও আফগানিস্তানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের অভিযান সংক্রান্ত কাগজপত্র. তারপর, নভেম্বরের শেষে, সাইটে দেখা দেয় সেই সব টেলিগ্রামের কপি, যা সারা পৃথিবী থেকে মার্কিনী দূতাবাসগুলি পররাষ্ট্র বিভাগে পাঠায়.