রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় মত্স উত্তোলন দপ্তরের প্রধান আন্দ্রেই ক্রাইনি দক্ষিণ কুরিল অঞ্চলে মাছ ধরার প্রকল্পে জাপানকেও অংশ নিতে আহ্বান জানিয়েছেন. তিনি মনে করেন যে, এলাকা সংক্রান্ত আলোচনার থেকে অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংক্রান্ত প্রকল্প গুলিকে পৃথক করা দরকার. ক্রাইনি ব্যাখ্যা করেছেন যে, একটি চৈনিক কোম্পানীর সঙ্গে দক্ষিণ কুরিল অঞ্চলের দ্বীপ কুনাশির এলাকায় যৌথ মাছ প্রজনন প্রকল্পের বিষয়ে কথা হয়েছে, একি ধরনের আলোচনা চলছে দক্ষিণ কোরিয়ার কোম্পানীর সঙ্গে. টোকিও দক্ষিণ কুরিল অঞ্চলে অর্থনৈতিক সহযোগিতা সংক্রান্ত প্রকল্প গুলির বিরোধিতা করেছে, কারণ মনে করেছে যে এই এলাকা জাপানের. তা স্বত্ত্বেও ১১ – ১২ ফেব্রুয়ারী মস্কো শহরে জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী সেইঝি মায়েহারার সফরের সময়ে তিনি দ্বীপ গুলিতে যৌথ অর্থনৈতিক সহযোগিতার প্রকল্পের স্বপক্ষেই কথা বলেছেন.