ইউরোপীয় সংঘের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতিও এই কাজের মধ্যে পড়ে. পররাষ্ট্র মন্ত্রীর কথামতো, মস্কো শুধু ইউরো অতলান্তিক অঞ্চলে অর্জিত ইতিবাচক পরিস্থিতি সুরক্ষিত করতে চায় না, চায় সমস্ত আঞ্চলিক সংস্থাতেও নিজের ভূমিকাকে প্রসারিত করতে চায়, যেমন, সাংহাই সহযোগিতা সংস্থায় রাশিয়ার ভূমিকার প্রসার, ব্রিকস সংস্থায় দক্ষিণ আফ্রিকার যোগদান উপলক্ষে রাশিয়ার ভূমিকা কে দৃঢ় করা.লাভরভ আশা প্রকাশ করেছেন যে, এই বছরেও বহু কেন্দ্রীয় বিশ্ব গঠনের প্রবণতা বৃদ্ধি পাবে – এই প্রবণতা বাস্তব, যদিও আন্তর্জাতিক পরিস্থিতি কি ভাবে বদলাবে, তা আগে থেকে বলা খুবই সহজ কাজ নয়.