রাশিয়ার পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষের আন্তর্জাতিক বিষয় সংক্রান্ত পরিষদের প্রধান মিখাইল মার্গেলভ মনে করেন যে, ইজিপ্টে পরবর্তী ঘটনা গুলি একমাত্র সেনা বাহিনীর অবস্থানের উপরে নির্ভর করছে. রাশিয়া বাণিজ্য পরামর্শ টিভি চ্যানেলে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি এই মন্তব্য করেছেন. "আমরা দেখতে পাচ্ছি গণ বিদ্রোহে পিষে যাওয়া পুলিশ বাহিনী ও মতিস্থির না করে প্রতিক্রিয়া শীল সেনা বাহিনীর কার্যকলাপ. একমাত্র সেনা বাহিনীই ইজিপ্টে পরিস্থিতির মোড় কোন এক নির্দিষ্ট দিকে ফেরাতে সক্ষম". তাঁর মতে, "এখনও কোন ভিত্তি মনে করার যে, ঐস্লামিক গোপন শক্তি এই বিদ্রোহের আয়োজন করেছে. কিন্তু ঐস্লামিক চরমপন্থীদের ইজিপ্টের নানা স্তরে প্রচুর যোগাযোগ রয়েছে, এখানে বিদ্রোহের সামনের সারিতে রয়েছে বঞ্চিতেরা. এদের দ্রুত কোন ধারণায় আবিষ্ট করা সম্ভব, বোঝানো যেতে পারে যে, দেশের ধর্ম নিরপেক্ষতা সমস্ত সমস্যার মূলে" – এই কথা তিনি উল্লেখ করেছেন. বিদ্রোহ যারা করছে, তারা বলছে যে, হোসনি মুবারকের বহু দশক ধরে চালিয়ে যাওয়া শাসনে, দেশে দারিদ্র, বেকারত্ব ও খাদ্যের অভাব ঘটেছে.

এর মধ্যে ইজিপ্টে রাশিয়ার রাজদূতাবাস থেকে বলা হয়েছে যে, ইজিপ্টে থাকা রুশ নাগরিকদের নিয়ে যাওয়ার জন্য সব কিছু তৈরী. বর্তমানে ইজিপ্টের বিভিন্ন সমুদ্র তীরের পর্যটন কেন্দ্রে প্রায় চল্লিশ হাজার রুশ নাগরিক রয়েছেন.