রোববার রাশিয়ার ফুটবল ইউনিয়ন ও ফিফার মধ্যকার একটি ঘোষণাপত্রে সাক্ষরের পরই রাশিয়া ২০১৮ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজককারী দেশের আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পেয়েছে.সেন্ট পিটার্সবার্গে ফুটবল বিষয়ক অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় এই ঘোষণাপত্র সাক্ষর করা হয়.

রাশিয়া অপর দুই শক্তিশালী যৌথ প্রতিপক্ষ,যেমন-স্পেন-পর্তুগাল ও বেলজিয়াম-হল্যান্ডকে পরাজিত করে ২০১৮ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজককারী দেশের মর্যাদা পায়.কঠোর প্রচেষ্টা ও সর্বোপরি রাষ্ট্রের পুরোপুরি সহযোগিতার কারণে এই সব কিছুই সম্ভব হয়েছে.বিশ্বকাপ.বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের প্রস্তুতি কমিটির তদারকির দায়িত্বে থাকবেন প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমীর পুতিন.

ঘোষণাপত্র সাক্ষর অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ভ্লাদিমীর পুতিন ফিফার প্রেসিডেন্ট সেপ ব্লাটারকে স্বাগত জানান.পুতিন বলেন,বহু জাতির ও নান ধর্মের এই রাশিয়ার জন্য বিশ্বকাপ ফুটবল অনুষ্ঠিত হওয়ার গুরুত্ব অনেক.তিনি বলেছেন,যে কোন সমাজের জন্য ফুটবল অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখে.এটি সবার পছন্দের খেলা এবং ফুটবল যা তরুনদেরকে রাস্তা,এ্যলকোহল ও মাদকদ্রব্য থেকে দূরে রাখে.আমরা ধারনা করছি যে,বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজন এবং তা অনুষ্ঠিত হওয়া আমাদের দেশের জীবনধারায়  অনেক ইতিবাচক অবদান রাখবে.আমি এখন আর বলছি না যে,কাঠামোগত উন্নয়ন.শুধুমাত্র স্টেডিয়ামই মূল বিষয় নয়.এর মধ্যে রয়েছে-বিমানবন্দর,সড়ক,টোলিযোগাযোগ,রেলপথ ইত্যাদি.যারা ফুটবলকে ভালবাসেন তারা এই সব কিছুই ব্যবহার করবেন এবং ব্যবহার করবেন রাশিয়ার সব নাগরিক.

সেপ ব্লাটার উল্লেখ করেন যে,ফুটবলের শিরোনাম হচ্ছে-‘জনসাধারনকে একত্রিত করা’ যা রাশিয়ার ক্ষেত্রে পুরোপুরি সঠিক,যেখানে বেশ কয়েকটি শহরে বিশ্বকাপ ফুটবলের খেলা অনুষ্ঠিত হবে.ফিফার প্রেসিডেন্ট মনে করেন,ফুটবল খেলায় রয়েছে সামাজিক-সাংস্কৃতিক একটি স্বরূপ এবং বিশ্বকাপ যা রাশিয়ার জন্য অনেক উজ্জ্বল একটি ইতিহাস হয়ে থাকবে.ব্লাটার দৃড়তার সাথে বলেন,নিজের দেশে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের পূর্ব পর্যন্ত এই সাত বছরে রাশিয়ায় তরুন ফুটবল খেলোয়াড়রা বেড়ে উঠবে এবং চ্যাম্পিয়ান হওয়ার জন্য নিজেদের যথেষ্ট প্রস্তুত করবে.

সোচিতে আগামী ২০১৪ সালে শীতকালিন অলিম্পিক গেমস আয়োজনের পুরো অভিজ্ঞতাই বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনে ব্যবহার করা হবে.এক্ষেত্রে রাশিয়া আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সাথে যৌথ উদ্দোগে কাজ করছে.সেই ধারাবাহিকতাই ২০১৮ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল আয়োজনের জন্য প্রস্তুত কমিটি গঠন করা হবে.ফিফার পক্ষ থেকে ঐ কমিটির জন্য বিশেষজ্ঞদের নিয়োগ দেওয়া হবে যারা শুধুমাত্র কার্যক্রমই পর্যবেক্ষন করবে না বরং এই বিশ্বকাপ আয়োজনে অংশ গ্রহন করবে.

উচ্চ মর্যাদার কোন আন্তর্জাতিক একটি ক্রিড়া আসর আয়োজন যা রাশিয়ার জন্য বিভিন্ন দিক থেকে গুরুত্বপূর্ণ.যা শুধুমাত্র দেশের ক্রিড়া ভাবমূর্তিই ফুটিয়ে তুলবে না বরং রাজনৈতিক ক্ষেত্রেও সমান অবদান রাখবে.নিজের রাষ্ট্রে এই ক্রিড়া আসর  আয়োজনের পূর্ব পর্যন্ত যে কয়েকটি বছর বাকি আছে তার আগেই সবকিছু হতে হবে সুষ্ঠ ও অত্যন্ত উন্নত.যা বিগত ১০ বছরে রাশিয়া প্রদর্শন করে আসছে.