রাশিয়া ও ইরানের রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ এবং মাহমুদ আহমাদিনেজাদ সোমবার টেলিফোন আলাপে বহুমুখী পারস্পরিক লাভজনক সহযোগিতার আরও বিকাশের মনোভাবের কথা পুনরায় বলেছেন, জানিয়েছে ক্রেমলিনের প্রেস-সার্ভিস. খবরে জানানো হয়েছে, “পারস্পরিক ক্রিয়াকলাপের সবচেয়ে পরিপ্রেক্ষিতপূর্ণ ধারা গুলির মধ্যে বিশেষ করে উল্লেখ করা হয়েছে শক্তির ক্ষেত্রে সহযোগিতা, সেই সঙ্গে “বুশের” পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের বাস্তবায়ন, যা শিগগিরই চালু হওয়ার কথা”. ইরানের পারমাণবিক কর্মসূচি নিয়ে মত বিনিময়ের সময় ইস্তাম্বুলে ইরানের প্রতিনিধিদের সাথে “ছয়টি দেশের” আসন্ন সাক্ষাতের গুরুত্বের কথা উল্লেখ করা হয়েছে. ক্রেমলিনের প্রেস-সার্ভিসে জানানো হয়েছে, “বিভিন্ন বহুপাক্ষিক ফর্মেটে এ প্রশ্নের আলোচনা চালিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে সমঝোতা অর্জিত হয়েছে”.