রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ পারমাণবিক ক্ষেত্রে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহযোগিতার রাজনৈতিকরণ এড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন. মঙ্গলবার উভয়পক্ষের নোট-বিনিময় হয়েছে, যা পারমাণবিক ক্ষেত্রে রাশিয়া ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মাঝে চুক্তির অনুমোদন সংক্রান্ত দু বছরব্যাপী কাজের সমাপ্তি ঘটিয়েছে, রাষ্ট্রপতির কাছে রিপোর্টে বলেছেন “রসআতোম” সংস্থার নেতা সের্গেই কিরিয়েনকো. তিনি জোর দিয়ে বলেন যে, “১২৩ নম্বর চুক্তি” এ ক্ষেত্রে দু দেশের সহযোগিতার জন্য পুরো পথ উন্মুক্ত করে. অর্থনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গী থেকে এটা গুরুত্বপূর্ণ, কারণ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র- প্রধান পারমাণবিক বাজার. রাশিয়া চুক্তি অনুযায়ী পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রগুলির জন্য জ্বালানীর চাহিদার প্রায় ৪০ শতাংশ পুরণ করে. আর চুক্তির অতিরিক্ত স্বাক্ষরিত সংযোজনী বিবেচনা করলে গত বছরে "রসআতোম" ৪৯০ কোটি ডলারের চুক্তি সমপাদন করেছে, সঠিক করে বলেন কিরিয়েনকো. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, কোম্পানির শেয়ার আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে, আর ২০শে ডিসেম্বর কোম্পানি ঐ দেশের ভূভাগে প্রথম টন ইউরেনিয়াম নিষ্কাশন করেছে. বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভান্ডারের ২০ শতাংশ রাশিয়ার. মেদভেদেভ জোর দিয়ে বলেন, “এ কাজটি ভালই. প্রধান ব্যাপার হল, এর যেন রাজনৈতিকরণ না হয়, ব্যবসা হিসেবে এ নিয়ে যেন কাজ করা হয়”.