শ্রীলঙ্কায় ভীষণ বন্যায় অন্ততপক্ষে ১৬ জন মারা গেছে. ১ লক্ষ ৮০ হাজারেরও বেশি লোক নিজেদের বাড়ি ছেড়ে যেতে বাধ্য হয়েছে. নিহতদের বেশির ভাগই শিকার হয়েছে ভূস্খলন এবং কর্দম প্রবাহের দরুণ, যা দেখা দিয়েছে ভীষণ বৃষ্টির জন্য. কূল ছাপিয়ে পড়া নদী এবং হ্রদ দেশের দক্ষিণ-পুবে আম্পারাই শহর এবং পুবের বাত্তিকালোয়া-কে ডুবিয়ে দিয়েছে. বসতি কেন্দ্রগুলির সাথে যোগাযোগ কঠিন হয়ে পড়েছে, কারণ কিছু কিছু জায়গায় মোটরপথ ও রেল-লাইন এক মিটার গভীর জলের তলায় চলে গেছে. শ্রীলঙ্কার কর্তৃপক্ষ, এবং তাছাড়া স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক মানবতাবাদী সংস্থাগুলি বিপর্যয়গ্রস্ত লোকেদের সাহায্য করার চেষ্টা করছে, বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়া বসতি কেন্দ্রগুলিতে খাদ্যদ্রব্য, পানীয় জল ও ওষুধপত্র পৌঁছে দিয়ে.