রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দিমিত্রি মেদভেদেভ পরিবহন মন্ত্রণালয়কে সুরগুতের বিমান দূর্ঘটনা সম্পর্কে খুবই পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাবে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন ও ভবিষ্যতে এই মডেলের বিমান ব্যবহারের সম্পর্কে নিষিদ্ধ করা বিষয়কে অস্বাভাবিক বলে মনে করেন নি. ১লা জানুয়ারী টি ইউ – ১৫৪ বে বিমানটি ইঞ্জিন চালু করার সঙ্গে সঙ্গেই আগুণ ধরে যায়, বিমানটি মস্কো আসছিল ও তার ফলে তিনজন নিহত ও চল্লিশ জন আহত হয়েছেন. কারণ বুঝতে হবে ও এই ধরনের বিমানগুলি কোনটাই নতুন নয় – উল্লেখ করেছেন মেদভেদেভ, যদি দেকা যায় যে, কোন একটা সার্বিক খুঁত রয়েছে, তাহলে এই ধরনের বিমান পরবর্তী কালে ব্যবহার করা যাবে কি না, তা নিয়েও ভাবতে হবে. পরিবহন মন্ত্রী ইগর লেভিতিন রাষ্ট্রপতিকে জানিয়েছেন যে, রসটেখনাদজোর নামের যান্ত্রিক বিষয়ে নিয়ন্ত্রণের জাতীয় সংস্থা দূর্ঘটনার তদন্ত শেষ হওয়া অবধি দেশের সমস্ত বিমান কোম্পানীকেই এই ধরনের বিমান ব্যবহার করতে নিষেধ করেছে. মেদভেদেভ আরও উল্লেখ করেছেন যে, ক্ষতিগ্রস্থদের সমস্ত ধরনের ক্ষতিপূরণের কাজ শেষ অবধি করা হবে.