রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই লাভরোভ মনে করেন যে, কোনো প্রাথমিক শর্ত ছাড়া ছয়পাক্ষিক আলাপ-আলোচনার আহ্বান কোরীয় উপদ্বীপে তীব্র হয়ে ওঠা পরিস্থিতির স্বাভাবিকীকরণের জন্য শ্রেষ্ঠ ধরণ. রাশিয়া এ ধারায় আলাপ-আলোচনার শরিকদের সাথেও সক্রিয়ভাবে কাজ করছে, বলেন তিনি “রস্সিয়া ২৪” টেলি-চ্যানেলে প্রদত্ত ইন্টারভিউতে. আজই ইতার-তাস সংবাদ সংস্থায় এক সাংবাদিক সম্মেলনে রাশিয়ার উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলেক্সেই বরোদাভকিন বলেন যে, মস্কো “ছয় দেশের” জরুরী বৈঠকের জন্য জোর দিচ্ছে. এ অঞ্চলে পরিস্থিতি তীব্র হয়ে ওঠে নভেম্বরে উত্তর কোরিয়ার ভূভাগ থেকে দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বীপের উপর গোলাগুলি বর্ষণের পরে. এ দ্বীপটি সীমান্ত রেখার কাছে অবস্থিত, যা রাষ্ট্রসঙ্ঘের হয়ে একতরফাভাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র নির্ধারণ করেছিল এবং পিয়ং ইয়ং তা স্বীকার করে না. এই “ছয় দেশের” মধ্যে আছে দুই কোরীয় রাষ্ট্র, রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান এবং চীন.