জেনেভায় আজ ইরানের পারমাণবিক সমস্যা নিয়ে তার সাথে "ছয়টি মধ্যস্থ দেশের" আলাপ-আলোচনা পুনরারম্ভ হচ্ছে. রাষ্ট্রসঙ্ঘের পাঁচটি স্থায়ী সদস্য দেশ ও জার্মানির প্রতিনিধিত্ব রয়েছে উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পর্যায়ে এবং ইরানের তরফ থেকে জেনেভায় প্রতিনিধিত্ব করবেন ইস্লামিক প্রজাতন্ত্র ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদের সচিব সইদ জালিলি. রাশিয়ার প্রতিনিধিত্ব করছেন উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই রিয়াবোভ. এই বিন্যাসে শেষ বার পক্ষগুলি সমবেত হয়েছিলেন এক বছরেরও বেশি আগে, তাই সংলাপের পুনরারম্ভকে সামনের দিকে এক পদক্ষেপ বলে বিবেচনা করা হচ্ছে. জুন মাসে রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদ ইরানের বিরুদ্ধে অতিরিক্ত বাধানিষেধ প্রবর্তন করেছিল, তবে তেহেরান ইঙ্গিত দিয়েছিল যে, নিজের পারমাণবিক কর্ণসূচি গুটিয়ে নিতে চায় না, যা বিশ্ব জনসমাজের, এবং সর্বপ্রথমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্বেগ জাগাচ্ছে. রবিবার ইরান ঘোষণা করেছে যে, স্বাধীনভাবে পেয়েছে ইউরেনিয়াম কনসেনট্রেটের প্রথম ক্ষেপ- পাউডার, যা প্রয়োজন ইউরেনিয়াম পরিশোধনের প্রক্রিয়ায়. তথাকথিত "ইয়োলোকেক" পাওয়া গেছে ইস্ফাহানের প্রসেসিং কারখানায়, বলেছেন জাতীয় পারমাণবিক শক্তি সংস্থার নেতা আলি আকবর সালেহি. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, এখন পর্যন্ত নিজের পারমাণবিক কাজকর্মের জন্য ইউরেনিয়াম কনসেনট্রেট সে পাচ্ছিল বিদেশ থেকে.