মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র উদ্বিগ্ন যে, পাকিস্তান ও ভারতের বিরোধিতা পারমাণবিক সঙ্ঘর্ষে পরিণত হতে পারে. এর সাক্ষ্য দেয় মার্কিনী কূটনীতিজ্ঞদের রিপোর্ট, যা “উইকিলিক্স” সংস্থার হাতে এসেছে এবং প্রকাশিত হয়েছে বৃটিশ “গার্ডিয়ান” পত্রিকায়. গোপন মার্কিনী কূটনৈতিক পত্রালাপের উদ্ধৃতি দিয়ে “গার্ডিয়ান” পত্রিকা লিখেছে, “আমেরিকা গোপনভাবে নিজস্ব বিশ্লেষণ করেছে সামরিক ক্ষেত্রে অভাবিত পরিস্থিতিতে ভারতের পরিকল্পনার, যার কোড নাম হল “কোল্ড স্টার্ট””. সেই “উইকিলিক্সের” ফাইলের দলিলে নিশ্চয়োক্তি করা হয়েছে, “ভারত ঘোষণা করেছে যে, যদি তাকে যথেষ্ট গুরুতরবাবে প্ররোচিত করা হয়, তাহলে সে দ্রুত পাকিস্তানে অনুপ্রবেশ করতে পারে”. মার্কিনী রাষ্ট্রদূতের দ্বারা পরিস্থিতির বিশ্লেষণের বর্ণনা করে গার্ডিয়ান পত্রিকা লিখেছে, “তবে, ভারতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত টিম রোমের ফেব্রুয়ারীতে সতর্ক করে দেন যে, ভারতের জন্য “কোল্ড স্টার্ট” পরিকল্পনার বাস্তবায়নের অর্থ হবে “পারমাণবিক গুটি নিয়ে খেলা”. তা হিরোসিমা ও নাগাসাকির পরে পৃথিবীতে প্রথম পারমাণবিক সঙ্ঘর্ষ হয়ে উঠতে পারে”. মার্কিনী গোপন কূটনৈতিক দলিলে বলা হয়েছে, “ভারতীয় নেতৃবৃন্দ নিঃসন্দেহে বোঝেন যে, কোল্ড স্টার্ট পরিকল্পনার লক্ষ্য হল পাকিস্তানকে শাস্তি দেওয়া, যা সীমিত পরিসরের চরিত্র ধারণ করবে এবং প্রত্যুত্তরী আঘাত আসবে না, তবে তাঁরা বিশ্বস্ত হতে পারেন না যে,পাকিস্তানের নেতৃবৃন্দ এমন উত্তর থেকে বিরত থাকবে”.