গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওয়াজেদকে বুধবার সমারোহের পরিবেশে সাঙ্কত পিতারুর্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মানিত ডক্টরেটের ডিগ্রিতে ভূষিত করা হয়েছে. রাশিয়ার প্রাচীনতম ক্লাসিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজ্ঞানী পরিষদ প্রধানমন্ত্রীকে এ সম্মানে ভূষিত করেছে “আন্তর্জাতিক মানবতাবাদী সহযোগিতা বিকাশে বিশিষ্ট অবদানের জন্য”. বিশ্ববিদ্যালয়ের রেক্টর, প্রফেসার নিকোলাই ক্রোপাচেভ জোর দিয়ে বলেন, “মহিলা, যিনি নিজের দেশকে বদলাচ্ছেন, তিনি সারা পৃথিবীকেও বদলাচ্ছেন”. রেক্টর বলেন, বাংলাদেশের সাথে আমাদের আন্তরিক সম্পর্ক রয়েছে. তিনি জোর দিয়ে বলেন, আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় পৃথিবীর সামান্য কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি, যেখানে বাংলা ভাষা ও সংস্কৃতি শেখানো হয়. এ বিষয়ে এখানে নিয়মিত বৈজ্ঞানিক সম্মেলন আয়োজিত হয়ে থাকে. শেখ হাসিনা ওয়াজেদ বিজ্ঞানী পরিষদকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং বলেন যে, তাঁর দেশের জন্য এটা বিপুল সম্মানের বিষয়. তিনি বলেন, “আমার জীবনের উদ্দেশ্য নিজের দেশ ও জনগণের সেবা করা এবং আমার পিতার “সোনার বাংলার” স্বপ্ন পুরণ করা. এ পথে আমাদের জন্য সবচেয়ে গুরুতর বাধা হল দৈন্য ও অসাম্য, এবং এর বিরুদ্ধে সংগ্রাম করা-আমাদের অন্যতম প্রধান কর্তব্য. এ সংগ্রামে আমাদের প্রধান হাতিয়ার হল শিক্ষা”.