রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ বৃহস্পতিবার নিঝনি নোভগোরদ প্রদেশের “মুলিনো” নামে সামরিক চাঁদমারি পরিদর্শন করবেন. এখন সেখানে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের স্থলবাহিনীর বড় মহড়ার শেষ পর্যায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে. আসন্ন সফর দেশে সোভিয়েত আমলে গঠিত সামরিক পরিচালনা ব্যবস্থা থেকে নতুন মডেলে উত্তরণ সংক্রান্ত সংস্কার শেষ হওয়ার পরে প্রথম সফর হবে. প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে যে, চাঁদমারিতে আগেকার ছয়টি সামরিক অঞ্চলের বদলে “কেন্দ্র”, “পশ্চিম”, “পূর্ব” এবং “দক্ষিণ” – এই চারটি ঐক্যবদ্ধ স্ট্র্যাটেজিক অধিনায়কমন্ডলী গঠন সংক্রান্ত নতুন ব্যবস্থা নিয়ে কাজ চালিয়ে যাওয়া হচ্ছে. মহড়ায় স্থলবাহিনীর অধিনায়কমন্ডলীর সমাবেশ হচ্ছে, যাতে অংশগ্রহণ করছে সমস্ত সামরিক অঞ্চলের ২০০ জনেরও বেশি অফিসার. স্থলবাহিনীর প্রধান অধিনায়ক কর্নেল-জেনারেল আলেক্সান্দর পোস্তনিকোভ উল্লেখ করেন যে, এ মহড়াতে “প্রতিরক্ষাত্মক লড়াই চালানোর প্রস্তুতির সময় সর্বাত্মক সুনিশ্চিতির ব্যবস্থা পালন সংক্রান্ত বিষয়গুলি” অনুশীলন করা হচ্ছে. এ মহড়ায় অংশগ্রহণ করছে মোটর-রাইফেল ও ট্যাঙ্ক বাহিনী, যা নিঝনি নোভগোরদ প্রদেশে মোতায়েন আছে.