দক্ষিণ কোরিয়া মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাথে পরামর্শ-বৈঠকে নিজের ভূভাগে মার্কিনী ট্যাক্টিক্যাল পারমাণবিক অস্ত্র ফিরিয়ে আনার সম্ভাবনা আলোচনা করবে. এ সম্বন্ধে আজ জানিয়েছেন কোরিয়া প্রজাতন্ত্রের প্রতিরক্ষামন্ত্রী কিম থে ইওই. তাঁর কথায়, এমন সম্ভাবনা আলোচনা করা হবে ডিসেম্বরে সংযত রাখার বিস্তৃত নীতি সংক্রান্ত কমিটির প্রথম মার্কিনী-দক্ষিণ কোরীয় সাক্ষাতে. মন্ত্রীর এ বিবৃতি ধ্বনিত হয়েছে পিয়ং ইয়ংয়ের পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্ক্ষা জনিত সেওলে ক্রমবর্ধমান উত্কন্ঠার পটভূমিতে. তা আরও বেড়েছে উত্তর কোরিয়ায় ইউরোনিয়াম পরিশোধনের নতুন কারখানা চালু হওয়া উপলক্ষে, যাতে বসানো হয়েছে এবং কাজ করছে ২০০০টি সেন্ট্রিফিউজ. ১৯৯১ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দক্ষিণ কোরিয়া থেকে সমস্ত ট্যাক্টিক্যাল পারমাণবিক অস্ত্র সরিয়ে আনার কথা ঘোষণা করেছিল. এ সব পারমাণবিক অস্ত্র ছিল রকেট এবং কামানের গোলায় ব্যবহারের জন্য, উত্তর কোরিয়াকে সংযত রাখার উপায় হিসেবে, এ প্রসঙ্গে উল্লেখ করেছে “রেনহ্যাপ” সংবাদ এজেন্সি.