রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ অ্যাসেম্বলির তৃতীয় কমিটি বিপুল সংখ্যাধিক্য ভোটে বর্ণবৈষম্যবাদের ধারণার প্রচার ঘটতে না দেওয়া সম্পর্কে রাশিয়ার দ্বারা প্রস্তাবিত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে. ১১৮টি প্রতিনিধিদল এর “পক্ষে” ভোট দিয়েছে, “বিরুদ্ধে”- একটি (মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র) এবং ৫৫টি প্রতিনিধিদল ভোটদান থেকে “বিরত” থেকেছে. সিদ্ধান্ত সংক্রান্ত ভোটদানের সময় বক্তৃতা দিয়ে রুশ ফেডারেশনের প্রতিনিধি গ্রিগোরি লুকিয়ান্তসেভ উল্লেখ করেন যে, নাত্সীবাদীদের মিছিল, সেই সব ব্যক্তির স্মৃতিমূর্তি স্থাপন, যারা লক্ষ লক্ষ নির্দোষ মানুষকে হত্যা করেছে “বর্ণগত প্রাধান্যের” তত্ত্ব প্রতিষ্ঠার জন্য, এ সবের কোনো সম্পর্ক নেই মত প্রকাশের স্বাধীনতা ও সভা-সমিতির স্বাধীনতা বাস্তবায়নের সাথে. তিনি মনে করিয়ে দেন যে, কয়েক দিন পরে সারা পৃথিবীতে পালিত হবে ৬৫তম বার্ষিকী ন্যুরেনবার্গ ট্রাইবুনাল গঠনের, যা নাত্সীবাদ ও তার জাতিগত তত্ত্বের দ্ব্যর্থহীন মূল্যায়ন করেছে. দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের ইতিহাস পুনর্বিবেচনার যে কোনো চেষ্টা,  প্রাক্তন নাত্সীবাদীদের দোষ স্খালনের প্রচেষ্টাকে আমাদের বিবেচনা করা উচিত এমন ক্রিয়া হিসেবে, যা রাষ্ট্রসঙ্ঘের বিধান লঙ্ঘন করে এবং সে সব মূলনীতি লঙ্ঘন করে যার ভিত্তিতে রাষ্ট্রসঙ্ঘ গঠিত হয়েছিল, জোর দিয়ে বলেন কূটনীতিজ্ঞ.