এশিয়ার দেশ গুলির সঙ্গে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক দৃঢ় করা, বিশেষত ভারতের সঙ্গে সু সম্পর্ক স্থাপন কোনভাবেই চীনের প্রভাব বিস্তারের বিরুদ্ধে ভারসাম্য বজায় রাখার প্রচেষ্টা নয়. এই বিষয়ে ঘোষণা করেছেন জাতীয় নিরাপত্তা প্রসঙ্গে মার্কিন রাষ্ট্রপতির সহকারী টম ডনিলন এক সাংবাদিক সম্মেলনে, তিনিও হোয়াইট হাউসের নেতার দশ দিন ব্যাপী এশিয়া সফরের সঙ্গী হয়ে ভারতে এসেছেন. সহকারী মনে করিয়ে দিয়েছেন যে, ওবামা ইতিমধ্যেই চীনের চেয়ারম্যান হু জিন টাও এর সঙ্গে ছয় বার দেখা করেছেন ও তাঁদের আগামী সাক্ষাত্কার তাঁর হতে চলেছে আগামী সপ্তাহে সিওল শহরে "জি – ২০" দেশের শীর্ষ বৈঠকের সময়ে. একই সঙ্গে ডনিলন মনে করেছেন যে, উল্লেখ করার প্রয়োজন রয়েছে যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র "এই অঞ্চলে আগামী সময়েও নিজেদের উপরে সহকর্মী দেশ হিসাবে ন্যস্ত দায়িত্ব পালন করবে ও এখানে নিরাপত্তা বজায় রাখার জন্য শক্তি প্রয়োগ করবে. এই বহুমাত্রিক ভূমিকা, যা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এই অঞ্চলে পালন করে, তা চীনের বিরুদ্ধে নয়, বলে তিনি আশ্বাস দিয়েছেন. এই ভূমিকা অঞ্চলের সব কটি দেশ ও একই সঙ্গে চীনের স্বার্থ রক্ষার জন্যও পালন করা হচ্ছে". ওবামা ১৪ই নভেম্বরের মধ্যে ভারত, ইন্দোনেশিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সফর করবেন.