ভারতের “টাইমস অফ ইন্ডিয়া” পত্রিকা লিখেছে, ভারত বুধবার পারমাণবিক ক্ষতির জন্য অতিরিক্ত ক্ষতিপুরণের কনভেনশন স্বাক্ষর করেছে, যেমন প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে. পারমাণবিক ক্ষতির জন্য অতিরিক্ত ক্ষতিপুরণ সংক্রান্ত কনভেনশন গৃহীত হয়েছিল ১৯৯৭ সালে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উদ্যোগে. ওয়াশিংটন আশা করেছিল যে, তা পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রের জন্য মার্কিনী যন্ত্রপাতি ও সরঞ্জাম সরবরাহকারীদের দুর্ঘনার ক্ষেত্রে দেউলিয়া হওয়া থেকে বাঁচানো যায়. তবে এ কনভেনশন কার্যকরী হতে শুরু করবে তখনও, যখন তা অনুমোদন করবে সেই দেশ, যার পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রগুলির মোট ক্ষমতা ৪ লক্ষ ওয়াট. বর্তমানে তা স্বাক্ষর করেছে ১৩টি দেশ, আর অনুমোদন করেছে মাত্র ৪টি দেশ, কিন্তি এটা যথেষ্ট নয়. দিল্লির প্রতিরক্ষা ও স্ট্র্যাটেজিক বিশ্লেষণ ইনস্টিটিউটের বিশেষজ্ঞ বালাচন্দ্রন বলেন, “কনভেনশনে অনুমিত যে, দুর্ঘটনার ক্ষেত্রে কনভেনশনের অন্যান্য অংশগ্রহণকারীদের কাছ থেকে অর্থ পাওয়া যাবে, যাতে সম্ভাব্য ক্ষতি পুরণ করা যায়”.