এই জার্মান নাগরিকেরা জন্ম সূত্রে তুরস্কের লোক. বিশেষ পরিষেবার থেকে পাওয়া খবর অনুযায়ী, এরা সকলেই সমস্ত পশ্চিম ইউরোপ জুড়ে সন্ত্রাসবাদী কাজকর্মের পরিকল্পনা করছিল, বার্লিন, প্যারিস, রোম ও অন্যান্য শহরে. বোমারু বিমানের আঘাতে আরও তিনজন পাকিস্থানী নাগরিক মারা গিয়েছে, যারা এই ধরনের সন্ত্রাসবাদী কাজকর্মের সঙ্গে জড়িত ছিল. বিমানটি উত্তর ওয়াজিরস্থানের মির আলি শহরে যোদ্ধাদের গোপন ঘাঁটিতে আঘাত করেছে, যা তালিবান ও আল কায়দার সক্রিয় কাজকর্মের সঙ্গে জড়িত ছিল.