ইরানের পারমাণবিক সমস্যার মীমাংসা সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক মধ্যস্থ "ছয়টি দেশ" গবেষণামূলক রিয়াক্টরের জন্য জ্বালানী সরবরাহ নিয়ে আলাপ-আলোচনা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব শুরু করার জন্য আহ্বান জানিয়েছে. রাশিয়া, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, ফ্রান্স এবং আন্তর্জাতিক পারমাণবিক শক্তি এজেন্সি ইরানের পারমাণবিক শক্তি এজেন্সির প্রতিনিধিদের সাথে আলাপ-আলোচনা চালাতে প্রস্তুত. প্রধান প্রশ্ন- তেহেরানের গবেষণামূলক রিয়াক্টরের জন্য জ্বালানী বদলের ব্যবস্থার পরবর্তী বাস্তবায়ন. এ ব্যবস্থা প্রণয়ন করা হয়েছিল গত বছরের অক্টোবরে এবং তা অনুযায়ী ব্যবহৃত জ্বালানী তেহেরান থেকে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে তুরস্কে তার পরিশোধনের জন্য. তারপর ইউরেনিয়াম আবার ফিরিয়ে আনার কথা. ইরানের তা প্রযোজন মেডিকেল আইসোটোপ তৈরীর জন্য. তেহেরানকে চুক্তির প্রযুক্তিগত দিক আলোচনার প্রস্তাব করা হচ্ছে. এর প্রাক্কালে রাশিয়ার রাষ্ট্রপতি দমিত্রি মেদভেদেভ ইরানকে এস-৩০০ মার্কা রকেট সমাহার সরবরাহ নিষেধের নির্দেশনামা স্বাক্ষর করেন. এ ব্যবস্থা রাষ্ট্রসঙ্ঘের নিরাপত্তা পরিষদের সিদ্ধান্তে অনুমিত ছিল, যা গৃহীত হয়েছিল তেহেরানের দ্বারা তার পারমাণবিক কর্মসূচি গুটিয়ে নিতে অস্বীকারের পরে.