ভারতের দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে দ্রুতগতিতে প্রসারিত হচ্ছে কলেরা ও আন্ত্রিক রোগ. সরকারী পরিসংখ্যান তথ্য অনুযায়ী, উড়িষ্যা রাজ্যে কলেরা এবং আনুষঙ্গিক আন্ত্রিক রোগ দেখা দেওয়ার সময় থেকে তিন দিনে ৩৮ জন মারা গিয়েছে, আরও এক হাজারেরও বেশি জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে. সবচেয়ে গুরুতর অবস্থা রায়গাদা জেলায়, যেখানে কলেরা ও আন্ত্রিক রোগে আক্রান্তদের সংখ্যা ৬৬০ জনের উপরে পৌঁছেছে. কর্তৃপক্ষ সেখানে পাঠিয়েছে বিপুল পরিমাণ ওষুধপত্র, খুলেছে ২০টি ফিল্ড-হাসপাতাল. অভূতপূর্ব মরসুমী বৃষ্টির দরুণ মহামারী রোগ দেখা দিয়েছে. উড়িষ্যায় শেষ গুরুতর কলেরার প্রকোপ দেখা দিয়েছিল ২০০৭ সালে. তাতে মারা গিয়েছিল ৮৪ জন, আরও প্রায় ৪ হাজার জন সংক্রমিত হয়েছিল.