প্রায় ৫ হাজার সৈনিক অংশগ্রহণ করছে শাংহাই সহযোগিতা সংস্থার দেশগুলির সন্ত্রাসবাদবিরোধী মহড়া – শান্তির মিশন-২০১০. রাশিয়ার ইন্টারফাক্স সংবাদ সংস্থা জানাচ্ছে যে, মহড়া হবে ৯ই থেকে ২৫শে পর্যন্ত তিন পর্যায়েঃ প্রথম পর্যায়ে- আলমা-আতায় পরামর্শ, দ্বিতীয়- মিলিত সন্ত্রাসবাদবিরোধী অভিযানের প্রস্তুতি, তৃতীয়- এ অভিযানের পরিচালনা. খাস অভিযান অনুষ্ঠিত হবে কাজাখস্তানের চাঁদমারিতে. রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে জানানো হয়েছে যে, শাংহাই সহযোগিতা সংস্থার দেশগুলির মহড়ার সক্রিয় পর্যায় অনুষ্ঠিত হবে ২৪শে সেপ্টেম্বর. এ সংস্থার শেষ মহড়া হয়েছিল ২০০৭ সালে উরাল অঞ্চলের চেলিয়াবিনস্ক প্রদেশে. এটি আন্তর্জাতিক সংস্থা, যাতে অন্তর্ভুক্ত কাজাখস্তান, চীন, কির্গিস্তান, রাশিয়া, তাজিকিস্তান এবং উজবেকিস্তান. এ সংস্থার উদ্দেশ্য- সন্ত্রাসবাদ, চরমপন্থা, নার্কোটিক ও অস্ত্রের চোরাচালানের এবং সীমান্তপারের ও আন্তর্জাতিক অপরাধপ্রবণতার  বিরোধিতা করা.