ইস্রাইলের প্রধানমন্ত্রী প্যালেস্টাইনীদের সাথে প্রত্যক্ষ আলাপ-আলোচনা সম্পর্কে সংযত আশাবাদ প্রকাশ করেছেন, তাতে অংশগ্রহণের জন্য আজ তিনি ওয়াশিংটন রওনা হচ্ছেন. নেতানিয়াহু বলেন যে, ইস্রাইলের নিরাপত্তার গ্যারান্টির উপর জোর দেবেন, যাতে জর্ডান নদীর পশ্চিম তীর থেকে সৈন্য অপসারণের পরে ইহুদী রাষ্ট্রের উপর শত শত রকেট বর্ষণ না হয়, যেমন তা ঘটেছিল লেবানন ও গাজা অঞ্চল থেকে ইস্রাইলের সরে আসার পরে. আজকের জেরুসেলাম পোস্ট পত্রিকা লিখেছে, আলাপ-আলোচনার নতুন রাউন্ড শুরু হওয়ার আগে ইস্রাইলের সামরিক অধিনায়কমন্ডলী স্বাধীন প্যালেস্টাইনী রাষ্ট্র দেখা দেওয়ার ক্ষেত্রে দেশের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার সুপারিশ প্রণয়ন করেছেন. পত্রিকাটি উল্লেখ করেছে, তাছাড়া, ইস্রাইল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সামরিক সাহায্য যথেষ্ট বাড়ানোর দাবি করবে. বিশেষ করে, প্রধানমন্ত্রী স্টেলস প্রকৌশলে তৈরী এফ-৩৫ মার্কা নতুন ফাইটার-বোমারু বিমানের বড় এক ক্ষেপ পাওয়ার চেষ্টা করবেন, এবং রকেটবিরোধী প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার উত্পাদন ও মোতায়েনের জন্য অতিরিক্ত অর্থ পাওয়ার.