রাশিয়া ভারত সরকারকে অনুরোধ করেছে নতুন পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্র নির্মাণের জন্য আগে নির্ধারিত পশ্চিমবঙ্গের জায়গার বদলে অন্য জায়গা নির্ধারণ করতে, লিখেছে আজকের টাইমস অফ ইন্ডিয়াসংবাদপত্র.  আশা করা হয়েছিল যে, ২০০৯ সালে নির্ধারিত পশ্চিমবঙ্গের হরিপুর গ্রামে ভারতীয় পক্ষ এ বছরেই প্রস্তুতিমূলক কাজ শুরু করবে, কিন্তু এতে বাধা দিচ্ছে স্থানীয় লোকেদের প্রতিবাদ. ভারতের পারমাণবিক শক্তি বিভাগের স্থান নির্বাচন কমিশন এখানকার পরিস্থিতির বিকাশ মনোযোগ সহকারে লক্ষ্য করছে, কেন্দ্রীয় সরকারের উত্সকে উদ্ধৃত করে লিখেছে পত্রিকাটি. তাঁর কথায়, রাশিয়ানদের উদ্বেগ জাগাচ্ছে যে, পারমাণবিক বিদ্যুত্শক্তি কেন্দ্রের পাশে সমুদ্রের জলের তাপমাত্রা বৃদ্ধির সম্ভাবনার বিরুদ্ধে জেলেদের প্রতিবাদ আন্দোলন ধীরে ধীরে রাজনৈতিক রঙ ধারণ করতে পারে. হরিপুর গ্রাম অবস্থিত বঙ্গোপসাগরের উপকূলে, ভারতের একটি ঘনবসতিপূর্ণ রাজ্য- পশ্চিমবঙ্গে. এ এলাকাটি উর্বরা মাটি এবং মত্স্যশিল্পের জন্য খ্যাত. প্রাথমিক মূল্যায়ন অনুযায়ী, হরিপুরে নির্মাণ-কাজ শুরু করার জন্য ২০ হাজারেরও বেশি পরিবারকে এখান থেকে সরাতে হবে. জেলেদের উত্কণ্ঠা হল এই যে, রিয়াক্টর ঠান্ডা করার পরে গরম জল সমুদ্রে ফেলার দরুণ মত্স্যশিল্পের ক্ষতি হতে পারে.